বুধবার, ১২ মে ২০২১, ০৭:৩৫ পূর্বাহ্ন

সেই মুন্নীর পাশে সুজানগর উপজেলা ছাত্রদলের আন্তরিক অবস্থান

অনলাইন ডেস্ক / ২০১ শেয়ার
প্রকাশ : শনিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২১

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় তিন হাজার ৩১১০তম হয়ে দিনাজপুরের এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন সুজানগরের ভ্যানচালকের মেয়ে মোছা. জান্নাতুম মৌমিতা মুন্নী। তবে মেধার জোরে মেডিকেলে চান্স পেলেও আর্থিক দুশ্চিন্তা তাকে ঘিরে ধরেছে।

সর্বশেষ, বুধবার (৭ এপ্রিল) এমন একটি সংবাদ দৈনিক যুগান্তরে প্রকাশ পাওয়ায় এগিয়ে এলো সুজানগর উপজেলা ছাত্রদল। অদম্য মেধাবী শিক্ষার্থী মুন্নীর হাতে ২০ হাজার টাকা ভর্তির জন্য হস্তান্তর করে ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদ। এ জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছে মুন্নি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদি দল-বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে। সুজানগর উপজেলা ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ বলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানকে অবগত করে আমরা আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে মুন্নীর ভর্তির খরচ বহন করি।আমরা মুন্নির পাশে আন্তরিক অবস্থানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম আমরা যা বলি তা বাস্তবায়নও করি, ভবিষ্যতেও করবো। অনেকেই মুন্নীর পাশে দাঁড়ানোর জন্য ঘোষণা দিয়েছিলেন, আপনাদেরকেও ধন্যবাদ। আসুন আমরা মিলেমিশে একটি মানবিক বাংলাদেশ বিনির্মাণ করি।’ এসময় তারা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সুজানগর উপজেলা ছাত্রদলের সোহেল বিশ্বাস, শেখ কাউসার, শেখ রুবেল,শামিম আহমেদ সহ আরো অন্যান্য নেত্রবৃন্দ।

জানা গেছে, পাবনা মেডিকেল কলেজ কেন্দ্র থেকে পরীক্ষায় অংশ নেন তিনি। পরীক্ষায় ১০০ নম্বরের মধ্যে তার নম্বর ৬৯.৭৫ নম্বর। পাবনার সুজানগর উপজেলার উদয়পুর গ্রামের বাকীবিল্লাহ ও রওশন আরা খাতুনের মেয়ে মুন্নী। চার সন্তানের মধ্যে সে সবার বড়। একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি তার পিতা দরিদ্র ভ্যানচালক। নিজ বাড়ির দুই কাঠা জায়গা ছাড়া কিছুই নেই। একটি ছোট টিনের ঘরে থাকেন পরিবারের সবাই। তার মেডিকেলে ভর্তি ও পড়ার খরচ চালানোর সামর্থ্য পিতার নেই। মুন্নী স্থানীয় পোড়াডাঙ্গা হাজী এজেম আলী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস করেন। পরে পাবনার সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ থেকে এইচএসসিতে জিপিএ-৫ পান।


এই বিভাগের আরও খবর
ব্রেকিং নিউজ
x
ব্রেকিং নিউজ
x