বুধবার, ১২ মে ২০২১, ০৭:১৯ পূর্বাহ্ন

পাবনায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এসআইয়ের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক / ৬৫ শেয়ার
প্রকাশ : রবিবার, ২৮ মার্চ, ২০২১

পাবনার আটঘরিয়া থানায় দুলাল হোসেন (৪৭) নামে এক উপ-পরিদর্শক (এসআই) বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা গেছেন। শনিবার (২৭ মার্চ) রাত সাড়ে ১০টার দিকে থানা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
দুলাল হোসেন রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার হাসানপুর গ্রামের মৃত আবেদ আলীর ছেলে। তিনি ১৯৯৩ সালে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে যোগ দেন। দুই বছর আগে বদলি হয়ে আটঘরিয়া থানায় যোগদান করেছিলেন। সম্প্রতি তাকে একই জেলার সুজানগর থানায় বদলির আদেশ দেওয়া হয়েছে।
আটঘরিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান বলেন, মুঠোফোনে কথা বলতে বলতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট স্ট্যান্ড স্পর্শ করলে তিনি আহত হন। পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মরদেহ পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে থানায় নিয়ে আসা হবে।
পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম জানান, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে থানা ভবনে আলোকসজ্জা করা হয়। সেই সঙ্গে থানার সামনে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের স্টিলের স্ট্যান্ডে আলোকসজ্জা করতে বৈদ্যুতিক তার জড়ানো ছিল। কোনোভাবে তার লিকেজ হয়ে স্টিলের স্ট্যান্ড বিদ্যুতায়িত হয়েছিল। এসআই দুলাল রাতে মুঠোফোনে কথা বলতে বলতে নিজের অজান্তেই সেই স্ট্যান্ড হাত দিয়ে ধরার সঙ্গে সঙ্গে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। পরে তাকে দ্রুত উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
এদিকে, এসআই দুলালের মৃত্যুর খবর পেয়ে আটঘরিয়ায় ছুটে যান জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ। এ সময় জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, শিক্ষক, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

রাকিব হাসনত

পাবনা
পাবনার আটঘরিয়া থানায় দুলাল হোসেন (৪৭) নামে এক উপ-পরিদর্শক (এসআই) বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা গেছেন। শনিবার (২৭ মার্চ) রাত সাড়ে ১০টার দিকে থানা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
দুলাল হোসেন রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার হাসানপুর গ্রামের মৃত আবেদ আলীর ছেলে। তিনি ১৯৯৩ সালে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে যোগ দেন। দুই বছর আগে বদলি হয়ে আটঘরিয়া থানায় যোগদান করেছিলেন। সম্প্রতি তাকে একই জেলার সুজানগর থানায় বদলির আদেশ দেওয়া হয়েছে।
আটঘরিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান বলেন, মুঠোফোনে কথা বলতে বলতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট স্ট্যান্ড স্পর্শ করলে তিনি আহত হন। পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মরদেহ পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে থানায় নিয়ে আসা হবে।
পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম জানান, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে থানা ভবনে আলোকসজ্জা করা হয়। সেই সঙ্গে থানার সামনে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের স্টিলের স্ট্যান্ডে আলোকসজ্জা করতে বৈদ্যুতিক তার জড়ানো ছিল। কোনোভাবে তার লিকেজ হয়ে স্টিলের স্ট্যান্ড বিদ্যুতায়িত হয়েছিল। এসআই দুলাল রাতে মুঠোফোনে কথা বলতে বলতে নিজের অজান্তেই সেই স্ট্যান্ড হাত দিয়ে ধরার সঙ্গে সঙ্গে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। পরে তাকে দ্রুত উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
এদিকে, এসআই দুলালের মৃত্যুর খবর পেয়ে আটঘরিয়ায় ছুটে যান জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ। এ সময় জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, শিক্ষক, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ সেখানে উপস্থিত ছিলেন।


এই বিভাগের আরও খবর
ব্রেকিং নিউজ
x
ব্রেকিং নিউজ
x