শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ০৭:০০ অপরাহ্ন

পাবনায় আ.লীগ কর্মীকে গুলি করে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক / ১৪০১ শেয়ার
প্রকাশ : রবিবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

নিজস্ব প্রতিনিধি: পাবনায় প্রতিপক্ষের গুলিতে আমিরুল ইসলাম (২৮) নামের এক আওয়ামী লীগ কর্মীকে গুলি করে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকেরা

রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১) রাত সোয়া আটটার দিকে সদর উপজেলার ভাঁড়ারা ইউনিয়নের আতাইকান্দা বাজারে ভূষির মোড়ে এই হত্যাকান্ড ঘটে।

নিহত আমিরুল কাথুলিয়া গ্রামের মন্তাজ ব্যাপারীর ছেলে, পেশায় সে একজন রাজমিস্ত্রির কাজ করতেন, ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ কর্মী ছিলেন ।

পদ্মা নদী পাড় এলাকা হওয়ায় বালু ব্যবসার আধিপত্য নিয়ে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী। তারা জানান পরপর তিনটি গুলি করে হত্যা নিশ্চত করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। এলাকাবাসী আরো জানান, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবু সাঁঈদ খানের সাথে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা সুলতান মাহমুদ এর বিরোধ চলে আসছিল। নিহত আমিরুল ইসলাম সুলতান গ্রুপের বলেও নিশ্চিত করেছেন তারা।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা সুলতান মাহমুদ বলেন, আমিরুল দৈর্ঘদিন ধরে আমার সাথে রাজনীতি করে আসছে, সে একজন নিরীহ মানুষ, তার ছেলে সন্তান এখন এতিম হয়ে গেল। তাকে হত্যা করা কোনভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান তিনি।

 

পাবনা সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিম আহমেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, রাত সোয়া আট টার দিকে সদর উপজেলার আতাইকান্দা বাজারে আমিরুলসহ তার সহযোগীরা আড্ডা দিচ্ছিল। এ সময় ৮/১০ জনের একদল সশস্ত্র ব্যাক্তি এসে আমিরুলকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এ সময় অন্যরা ভয়ে দিগি¦বিদিক ছুটে আত্মগোপন করার চেষ্টা করলেও ঘটনাস্থলেই আমিরুল মারা যায়।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করে জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে এলাকাটি দূর্গম ও সন্ত্রাস কবলিত। কারা এই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত তাৎক্ষনিক ভাবে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে পূর্ব বিরোধ চলছিল ওই এলাকায়। বিষয়টি তদন্ত করে হত্যাকারীদের চিন্হিত করার চেষ্টা চলছে।

 


এই বিভাগের আরও খবর
ব্রেকিং নিউজ
ব্রেকিং নিউজ